pep.zone
Welcome, guest. You are not logged in.
Log in or join for free!
 
Stay logged in
Forgot login details?

Login
Stay logged in

For free!
Get started!

Text page


deshi08.pep.zone

বৌদি

যে দিনটি দিয়ে আমার গল্পের সূচনা করছি, সেটি ছিল আমার মেজদার ফুলশয্যার রাতের পরের দিন | দুপুর বেলা বড় বৌদি আর বাড়ির সব ভাইবোনেরা মিলিয়ে মেজদার ঘরে রীতিমতো হামলা করছি | আড্ডা, হাসাহাসি, নব দম্পতিকে ঘিরে নানান রসাত্মক ইঙ্গিত – সব কিছুই সমানে চলছে | মেজদা মিটিমিটি হাসছে আর নতুন বৌদি লাজুক মুখে নতুন শাড়ি পড়ে সেজেগুজে খাটে বসে আছে |

নতুন বৌদির গায়ের রং শ্যামলা | গায়ের রং কালো বলে জেঠিমার বেশ দুঃখ, আমার মায়ের যদিও ভীষণ পছন্দ হয়েছিল ওকে | বাবা, জেঠু – ওদেরও খুব ভালো লেগেছিলো | আমি যখন নতুন বৌদিকে প্রথম দেখলাম, তখন প্রথম যে কথাটা মনে হয়েছিল সেটি হলো -“তা সে যতই কালো হোক, দেখেছি তার কালো হরিন চোখ” | অদ্ভুত সুন্দরী, লাবন্যে ভরা চেহারাটি, তার চেয়েও সুন্দর ওর চোখের ভাষা | আমার তো একেবারে love at first sight | মেজদার কি হয়েছিল তা মেজদাই জানে |

আমাদের বাড়িতে দাদাদিদিদের ডাকগুলি জেঠুর পরিবার মিলিয়েই হয় | জেঠুর, বাবার – দু জনেরই দুই ছেলে এক মেয়ে – বড়দা, মেজদা আর দিদি জেঠুর ছেলেমেয়ে আর ছোড়দা, আমি, আমার বোন – এরা বাবার ছেলেমেয়ে | ভীষণ জমজমাট ব্যাপার হয় সবাই একত্র হলে | মেজদা দেশের সেরা কারিগরী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলির একটি থেকে এবং তারপর দেশের সেরা ম্যানেজমেন্ট স্কুল থেকে পাশ করা ছাত্র ছিল | বিয়ের সময়তেই মেজদা সুপ্রতিষ্ঠিত, মুম্বাই (বম্বেই বলি, তখন শহরের নাম ছিল তাই )এর অদূরে থানে তে নিজে ফ্ল্যাট কিনে বসেছে | মেজদার বয়স তখন ২৯ বছর | নতুন বৌদি তখনো এম এ পরীক্ষা দেয়নি, ওর বয়স ২২ এর বেশি নিশ্চয় নয় | আমি সবেমাত্র ফার্স্ট ইয়ারে পড়ি, বয়স ১৮ ও হয়নি |

আমাদের সেদিনের আড্ডাতেই ফিরে আসি | অন্ত্যাক্ষরী খেলা চলছে নতুন বৌদিকে নিয়ে | গানের সুরেলা গলার আভাস পেয়েই আর আমি ছাড়লামনা | আগেই জানতাম যে কলকাতার বড় গানের স্কুল থেকে বৌদি গান শিখেছে | অনুরোধ করলেই কি নতুন বউ সঙ্গে সঙ্গে গান গাইবে নাকি ? আমি দিদির তানপুরাটা সোজা ওর হাতে এনে দিলাম |
-“এ কি ? এ বাবা !” নতুন বৌদি ভীষণ লজ্জা পেয়ে বললো |
-“মেজদার জন্য একটা গান করো তো”
-“না, প্লিজ – সবাই গান করুক”
-“রূপে তোমায় ভোলাবোনা, ভালোবাসায় ভোলাবো | যদি কালকে রাতেই শুনিয়ে না থেকে থাকো-”
শেষমেষ চাপে পড়ে গাইতেই হলো নতুন বৌদিকে | ওর অপূর্ব গায়কী শুনে বললাম “তুমি তো গান গেয়ে দ্বার খুলিয়েই দিয়েছ” | তারপর আরো কত গান গাইলো বৌদি | দিদিকে, তারপর বোনকেও ছাড়া হলনা |

ভয় পাচ্ছিলাম তীরটা কখন আমার দিকে ছোড়া হয় | আমার বোনটাই সব মাটি করলো | আমি আর সাহস করে নতুন বৌদির সামনে ...
Next part ►


This page:




Help/FAQ | Terms | Imprint
Home People Pictures Videos Sites Blogs Chat
Top
.