pep.zone
Welcome, guest. You are not logged in.
Log in or join for free!
 
Stay logged in
Forgot login details?

Login
Stay logged in

For free!
Get started!

Text page


saxy.bhabi1.pep.zone

অনুর অধঃপতন

অনু তার জামা কাপর গুলি তুলে নিল। কিন্তু পরতে ইচ্ছা হল না। বাইরে তখন ও বৃষ্টি হচ্ছিল বজ্রপাতের আলো ছাড়া আর কোন আলো ছিল না। মাঝে মাঝে আকাশ থেকে নেমে আসা আলোকচ্ছটায় লিনা মাসির লেগে থাকা যোনী রসে ভিজা পুরুষাংগ টা চক চক করছিল যেন যুদ্ধ ক্লান্ত কোন বীর তন্দ্রায় মগ্ন। অনুর সতীত্ব হরন সম্পন্ন হ্ল বৃষ্টি ভেজা রাতে অনুর চেয়ে বয়সে অনেক বড় অপুর্ব অপ্সরার হাতে। অপুর্ব আনন্দ পেয়েছে অনু। অনু ঠিক করল নিজের রুমে গিয়ে ঘুমাবে। অনুর স্কুল বন্ধ তাই সকালে স্কুলে যেতে হবে না।মাধবীদের রুমে গেলে আর ঘুমাতে পারবেনা। পাশে এইরকম দুইজন অপ্সরা থাকলে কি ঘুমানো যায়? জামাকাপর পরে নিজের রুমে গিয়ে খাটে শুতেই ঘুমের রাজ্যে চলে গেল অনু।
পরদিন সকালে রামুকাকার খট খটানিতে ঘুম ভাংগল। টেবিল ঘড়িতে দেখল সকাল ৮ টা বাজে। মনে মনে বিরক্ত হ্ল। এত সকালে ঘুম থেকে উঠার ইচ্ছা ছিল না। তারপর ও একবার ঘুম ভাংগলে আর ঘুম আসেনা অনুর। জানালা দিয়ে দেখতে পেল বৃষ্টি তখন ও থামেনি। আকাশ মেঘ করে আছে বাইরেটা দেখলে মনেই হয় না যে সকাল হয়েছে। অনু টুথপেষ্ট নিয়ে ব্রাশে লাগাল তারপর দরজা খুলে বের হয়ে এল। একটু এগুতেই দেখল লিনা মাসিদের দরজা ভেতর থেকে বন্ধ। হাফ ছেড়ে বাচল অনু। কাল রাতের পর দিনের আলোতে লিনা মাসির সামনা সামনি পড়তে খুবই লজ্জা লাগছিল। বারান্দা দিয়ে হেটে সোজা কলের সামনে চলে গেল। কলঘরের সাথেই বৈঠক ঘর। অনু দেখল বৈঠক ঘরের দরজার একটা পাল্লা খোলা। সাধারনত এই সময়ে বৈঠক ঘরে কেউ থাকার কথা না। অনু তাড়াতাড়ি দাত মেজে মুখ ধুয়ে কলঘরে রাখা তোয়ালেতে হাত মুখ মুছে নিল। তারপর খুব সন্তর্পনে হেটে গেল। দেখল তাদের বুয়াটা বৃষ্টিতে ভেজা কাপর ছাড়ছে। অনু যখন গেল তখন অলরেডি বুয়া তার উপরের অংশ খুলে ফেলেছে। বুয়ার কালো শরীরে একফোটা ও মেদ নেই। স্তন বৃন্তগুলো একদম খাড়া খাড়া। বৃষ্টির জল চক চক করছে কালো শরীরে। স্তন গুলো ভরাট ভরাট সত্যি আকর্ষনীয়। অনু সরে আসতে চাইছিল কিন্তু পারছিল না। পাগুলা যেন আটকে গেছে। বুয়া অনুর দিকে পিছন ফিরে ছায়াটা খুলে ফেল্ল... নিতম্বের ভাজ দেখে অনুর মাথা খারাপ হয়ে গেল। তানপুরার মত গোল নিতম্ব ভেজা চুল বেয়ে জল নিতম্বে পড়ছিল। বুয়া আস্তে আস্তে গামছা দিয়ে সারা শরীর মুছতে লাগল। যখন উবু হয়ে পা মুছতে গেল তখন অনুর যেটা দেখা বাকী ছিল তাও দেখ হয়ে গেল। বুয়ার যোনীর চারপাশে কোন লোম নেই। বেশ ফোলা ফোলা একটা ভাব আছে। যোনীর চেরাটা ঠিক তার ...


This page:




Help/FAQ | Terms | Imprint
Home People Pictures Videos Sites Blogs Chat
Top
.